গৃহবধূর আপত্তিকর ভিডিও করে টাকা দাবি, যুবক আটক

0
251

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:: শরীয়তপুরে এক প্রবাসীর স্ত্রীর আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে চাঁদা দাবির অভিযোগে এক যুবককে আটক করেছে র‌্যাব-৮। শুক্রবার ভোর ৬টার দিকে নড়িয়া উপজেলার পাঁচগাও গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়।

আটক মো. সেলিম হাওলাদার (২৫) উপজেলার কেদারপুর ইউনিয়নের পাঁচগাঁও গ্রামের মৃত মতিউর রহমান হাওলাদারের ছেলে।

র‌্যাব ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মো. সেলিম হাওলাদার নড়িয়া উপজেলার চন্ডিপুর এলাকার এক প্রবাসীর স্ত্রীকে ফুসলিয়ে গোপনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে এবং তার সাথে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে। পরে অন্তরঙ্গ মুহূর্তের দৃশ্য কৌশলে মোবাইলে ধারণ করে। আপত্তিকর দৃশ্য অনলাইনে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ঐ প্রবাসীর স্ত্রীর নিকট হতে কয়েক দফায় মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয় সেলিম।

এক সপ্তাহ আগে আপত্তিকর ভিডিও’র মেমোরি কার্ড প্রবাসীর স্ত্রীর পরিবারের নিকট সরবরাহ করে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। এ ঘটনায় প্রবাসীর স্ত্রীর পরিবার আইনগত সহায়তা চেয়ে র‌্যাব-৮ মাদারীপুর ক্যাম্পের নিকট লিখিত অভিযোগ দায়ের কর। এরই প্রেক্ষিতে র‌্যাবের একটি দল নড়িয়া উপজেলার পাঁচগাও এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই যুবককে আটক করে।

র‌্যাব-৮ (সিপিসি-৩) মাদারীপুর ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইছ উদ্দিন জানান, গৃহবধূর স্বামী প্রবাসে থাকার সুযোগে আটক বখাটে আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে চাঁদা দাবি করে। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূর পরিবার আইনি সহায়তা চায়। পরে অভিযান চালিয়ে বখাটে সেলিমকে আটক করা হয়।

তিনি জানান, সেলিমকে আটককের পর তার নিকট হতে আপত্তিকর ভিডিও ও ছবি সম্বলিত মোবাইল ও মেমোরি কার্ড জব্দ করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অভিযোগের বিষয়ে সত্যতা স্বীকার করে সেলিম। আটককৃত আসামিকে নড়িয়া থানায় হস্তান্তর করা হবে বলে জানান তিনি।

ভুক্তভোগি প্রবাসীর স্ত্রী জানান, ৫ বছর যাবৎ তার স্বামী ইতালিতে থাকেন। বিদেশ যাওয়া পর থেকে পার্শ্ববর্তী গ্রামের সেলিম হাওলাদার তাকে ফুসলিয়ে গোপন প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে এবং তাদের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের দৃশ্য কৌশলে মোবাইলে ধারণ করে।

সেলিম আপত্তিকর দৃশ্য অনলাইনে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে তার পরিবারের কাছ থেকে ৫ লাখ টাকা দাবি করে। তাই এ বিষয়ে মাদারীপুর র‌্যাবের কাছে সেলিমের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করা হয়। সেলিমের বিচার দাবি করেছেন ভুক্তভোগী প্রবাসী স্ত্রী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here